ইতালিতে ফ্যাসিবাদের উত্থান আলোচনা কর।

Rise of Fascism in Italy

 ইতালিতে ফ্যাসিবাদের উত্থান

ইতালিতে ফ্যাসিবাদের উত্থান একটি উল্লেখযোগ্য রাজনৈতিক বিকাশ যা বিংশ শতাব্দীর প্রথম দিকে ঘটেছিল। এই বিষয়ে আলোচনা করার জন্য এখানে কিছু মূল বিষয় রয়েছে:

 1. অর্থনৈতিক ও সামাজিক অস্থিতিশীলতা: 

প্রথম বিশ্বযুদ্ধের পর, ইতালি অর্থনৈতিক অস্থিরতা, উচ্চ মুদ্রাস্ফীতি, বেকারত্ব এবং সামাজিক অস্থিরতার সম্মুখীন হয়েছিল। এই অবস্থাগুলি ট্র্যাকশন লাভের জন্য উগ্র রাজনৈতিক মতাদর্শের জন্য একটি উর্বর স্থল তৈরি করেছিল।

 2. বেনিটো মুসোলিনি এবং ফ্যাসিস্ট পার্টি: 

বেনিটো মুসোলিনি, একজন প্রাক্তন সমাজতান্ত্রিক, 1919 সালে ফ্যাসিস্ট পার্টি প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। তিনি বিদ্যমান রাজনৈতিক প্রতিষ্ঠার অসন্তোষকে পুঁজি করে ইতালির জাতীয় গর্ব ও মহত্ত্ব পুনরুদ্ধার করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন।

 3. ব্ল্যাকশার্ট এবং আধাসামরিক সহিংসতা: 

ফ্যাসিস্ট পার্টি ব্ল্যাকশার্ট নামে পরিচিত আধাসামরিক স্কোয়াড গঠন করেছিল, যারা রাজনৈতিক প্রতিপক্ষকে ভয় দেখানো এবং সহিংসতার মাধ্যমে বিরোধীদের দমন করার জন্য দায়ী ছিল। তাদের কর্মকাণ্ড গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানকে অস্থিতিশীল করতে ভূমিকা রেখেছে।

 4. রোমে মার্চ: 

1922 সালে, মুসোলিনি এবং তার অনুসারীরা রোমে মার্চের আয়োজন করে, রাজনৈতিক ক্ষমতার দাবিতে একটি বড় আকারের বিক্ষোভ। একটি সম্ভাব্য গৃহযুদ্ধের ভয়ে, রাজা ভিক্টর এমানুয়েল তৃতীয় মুসোলিনিকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দেন যাতে আরও সংঘাত এড়ানো যায়।

 5. ক্ষমতা একত্রীকরণ: 

একবার ক্ষমতায় আসার পর, মুসোলিনি ধীরে ধীরে গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানগুলি ভেঙে দেন এবং তার কর্তৃত্বকে সুসংহত করেন। তিনি রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বীদের দমন করেন, নাগরিক স্বাধীনতা খর্ব করেন এবং একটি সর্বগ্রাসী শাসন প্রতিষ্ঠা করেন, যেখানে রাষ্ট্রের প্রতি আনুগত্য এবং ফ্যাসিবাদী আদর্শ ছিল সর্বাগ্রে।

 6. ব্যক্তিত্বের সংস্কৃতি এবং প্রচার: 

মুসোলিনি ব্যক্তিত্বের একটি শক্তিশালী সংস্কৃতি গড়ে তুলেছিলেন, নিজেকে ইতালীয় জাতির মূর্ত প্রতীক হিসাবে চিত্রিত করেছিলেন। ফ্যাসিবাদী মতাদর্শ প্রচারে, শাসনকে মহিমান্বিত করতে এবং ভিন্নমত দমনে প্রচার একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিল।

 7. কর্পোরেট রাষ্ট্র এবং স্বয়ংক্রিয়: 

মুসোলিনি একটি কর্পোরেট রাষ্ট্র তৈরির লক্ষ্যে নীতি বাস্তবায়ন করেছিলেন, যেখানে সরকার অর্থনীতির বিভিন্ন দিক নিয়ন্ত্রণ করে। তিনি বিদেশী আমদানির উপর নির্ভরতা হ্রাস করে স্বয়ংসম্পূর্ণতা কামনা করে স্বয়ংক্রিয়তার অনুসরণ করেছিলেন।

 8. ইতালীয় সাম্রাজ্যবাদ এবং ঔপনিবেশিক উচ্চাকাঙ্ক্ষা: 

মুসোলিনি একটি ইতালীয় সাম্রাজ্য পুনঃপ্রতিষ্ঠার লক্ষ্য নিয়ে একটি সম্প্রসারণবাদী পররাষ্ট্রনীতি অনুসরণ করেছিলেন। 1935 সালে ইথিওপিয়ায় ইতালির আক্রমণ এবং স্প্যানিশ গৃহযুদ্ধে এর অংশগ্রহণ ছিল মুসোলিনির সাম্রাজ্যবাদী উচ্চাকাঙ্ক্ষার উদাহরণ।

 9. এন্টি-সেমিটিজম এবং জাতিগত আইন: 

1930 এর দশকের শেষের দিকে, নাৎসি জার্মানির প্রভাবে, মুসোলিনি ইহুদি-বিরোধী নীতি এবং জাতিগত আইন প্রয়োগ করেছিলেন। এই বৈষম্যমূলক পদক্ষেপগুলি ইহুদি এবং অন্যান্য সংখ্যালঘু গোষ্ঠীকে লক্ষ্যবস্তু করে, যা নাৎসি মতাদর্শের সাথে ফ্যাসিবাদী ইতালির ক্রমবর্ধমান সারিবদ্ধতার প্রতিফলন করে।

 10. দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ এবং পতন: 

নাৎসি জার্মানির সাথে ইতালির মিত্রতা এবং দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে এর পরবর্তী অংশগ্রহণ বিপর্যয়কর প্রমাণিত হয়েছিল। মুসোলিনির শাসনামল সামরিক পরাজয়, অভ্যন্তরীণ ভিন্নমত এবং জনগণের অসন্তোষের মুখোমুখি হয়েছিল। 1943 সালে, তাকে ক্ষমতা থেকে উৎখাত করা হয়, এবং ইতালি যুদ্ধে পক্ষ পরিবর্তন করে, যার ফলে ফ্যাসিবাদের চূড়ান্ত পতন ঘটে।

 এটা লক্ষ করা গুরুত্বপূর্ণ যে ইতালিতে ফ্যাসিবাদ দেশের রাজনৈতিক, সামাজিক এবং সাংস্কৃতিক ফ্যাব্রিকের উপর গভীর প্রভাব ফেলেছিল। ফ্যাসিবাদের উত্থান এবং পতন কর্তৃত্ববাদ, সর্বগ্রাসীবাদ এবং গণতান্ত্রিক মূল্যবোধের অবক্ষয়ের বিপদের স্মারক হিসাবে কাজ করে।

Related Short Question:

প্রশ্নঃ ইতালিতে কখন ফ্যাসিবাদের উত্থান ঘটে?

 উত্তর: ২০ শতকের প্রথম দিকে ইতালিতে ফ্যাসিবাদের উত্থান ঘটে।

 প্রশ্নঃ ফ্যাসিস্ট ইতালির নেতা কে ছিলেন?

 উত্তর: বেনিটো মুসোলিনি ছিলেন ফ্যাসিস্ট ইতালির নেতা।

 প্রশ্ন: ফ্যাসিবাদের সাথে যুক্ত আধাসামরিক স্কোয়াডগুলিকে কী বলা হত?

 উত্তর: ফ্যাসিবাদের সাথে যুক্ত আধাসামরিক স্কোয়াডগুলিকে ব্ল্যাকশার্ট বলা হত।

 প্রশ্নঃ মুসোলিনি কিভাবে ক্ষমতায় আসেন?

 উত্তর: মুসোলিনি 1922 সালে রোমে মার্চের মাধ্যমে ক্ষমতায় আসেন এবং পরবর্তীতে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ পান।

 প্রশ্ন: ফ্যাসিস্ট ইতালির কিছু বৈশিষ্ট্য কী ছিল?

 উত্তর: ফ্যাসিবাদী ইতালির একটি সর্বগ্রাসী শাসন ছিল, ব্যক্তিত্বের একটি ধর্ম ছিল এবং প্রচারের উপর ব্যাপকভাবে নির্ভরশীল ছিল।

 প্রশ্ন: মুসোলিনি দ্বারা বাস্তবায়িত জাতিগত নীতিগুলি কী ছিল?

 উত্তর: মুসোলিনি ইহুদি ও সংখ্যালঘু গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে বৈষম্যমূলক ইহুদি-বিরোধী নীতি এবং জাতিগত আইন প্রয়োগ করেছিলেন।

 প্রশ্ন: নাৎসি জার্মানির সাথে ইতালির জোট ফ্যাসিস্ট ইতালিকে কীভাবে প্রভাবিত করেছিল?

 উত্তর: নাৎসি জার্মানির সাথে ইতালির মিত্রতা নাৎসি মতাদর্শের সাথে সারিবদ্ধতা, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে জড়িত হওয়া এবং শেষ পর্যন্ত পতনের দিকে পরিচালিত করে।

 প্রশ্নঃ ইতালিতে কখন ফ্যাসিবাদের পতন ঘটে?

 উত্তর: 1943 সালে ইতালিতে ফ্যাসিবাদের পতন ঘটে, মুসোলিনির ক্ষমতা থেকে উৎখাত হওয়ার পর এবং ইতালি যুদ্ধে পক্ষ পরিবর্তন করে।

 প্রশ্ন: ইতালিতে ফ্যাসিবাদের উত্থান ও পতন থেকে কী শিক্ষা নেওয়া যেতে পারে?

 উত্তর: ইতালিতে ফ্যাসিবাদের উত্থান এবং পতন কর্তৃত্ববাদ, সর্বগ্রাসীবাদ এবং গণতান্ত্রিক মূল্যবোধের অবক্ষয়ের বিপদের স্মরণ করিয়ে দেয়।

Next Post Previous Post