বাংলার প্রাগৈতিহাসিক অতীত উন্মোচন: পান্ডু রাজার ঢিবি আবিষ্কার

 পান্ডু রাজার ঢিবিতে বাংলার ইতিহাসের কোন প্রাগৈতিহাসিক প্রমাণ পাওয়া যায়?

পান্ডু রাজার ঢিবি বাংলায় অবস্থিত একটি প্রত্নতাত্ত্বিক স্থান এবং এটি বাংলার ইতিহাসের মূল্যবান প্রাগৈতিহাসিক প্রমাণ প্রদান করে। এখানে পান্ডু রাজার ঢিবিতে পাওয়া প্রাগৈতিহাসিক প্রমাণ সম্পর্কিত কিছু পয়েন্ট রয়েছে:

 1. নিওলিথিক বসতি: 

পান্ডু রাজার ঢিবিতে খননকালে প্রায় 1500 খ্রিস্টপূর্বাব্দের একটি নিওলিথিক বসতির অবশেষ পাওয়া গেছে। এটি প্রাগৈতিহাসিক সময়ে এই অঞ্চলে মানুষের বাসস্থান নির্দেশ করে।

 2. সিরামিক আর্টিফ্যাক্টস: 

প্রত্নতাত্ত্বিকরা এই স্থানে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক মৃৎশিল্পের খন্ড আবিষ্কার করেছেন। এই সিরামিক শিল্পকর্মগুলি বাংলার প্রাগৈতিহাসিক বাসিন্দাদের প্রযুক্তি, কারুশিল্প এবং শৈল্পিক শৈলীর অন্তর্দৃষ্টি প্রদান করে।

 3. মেগালিথিক সমাধি: 

পান্ডু রাজার ঢিবিতে মেগালিথিক সমাধিস্থল রয়েছে, যেগুলি কবর স্থান চিহ্নিত করতে ব্যবহৃত বড় পাথরের কাঠামো বা ঢিবি দ্বারা চিহ্নিত করা হয়। এই মেগালিথিক সমাধিগুলি একটি অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া সংস্কৃতির অস্তিত্বের ইঙ্গিত দেয় এবং বাংলার প্রাগৈতিহাসিক সম্প্রদায়ের সামাজিক ও ধর্মীয় অনুশীলন সম্পর্কে সূত্র দেয়।

 4. হাতিয়ার এবং ইমপ্লিমেন্ট: 

পান্ডু রাজার ঢিবিতে ব্লেড, স্ক্র্যাপার, তীরের মাথা এবং পিষে ফেলা পাথর সহ বিভিন্ন পাথরের হাতিয়ার এবং সরঞ্জাম আবিষ্কার করা হয়েছে। এই সরঞ্জামগুলি প্রযুক্তিগত অগ্রগতি এবং প্রাগৈতিহাসিক মানুষের জীবনধারাকে প্রতিফলিত করে, যেমন শিকার, সমাবেশ এবং কৃষি অনুশীলন।

 5. বাণিজ্যের প্রমাণ: 

পান্ডু রাজার ঢিবিতে নির্দিষ্ট ধরণের মৃৎশিল্প এবং শিল্পকর্মের আবিষ্কার যা এই অঞ্চলের স্থানীয় নয় অন্যান্য প্রাগৈতিহাসিক সংস্কৃতির সাথে বাণিজ্য সংযোগের ইঙ্গিত দেয়। এটি ইঙ্গিত দেয় যে বাংলার অধিবাসীরা বাণিজ্য নেটওয়ার্ক স্থাপন করেছিল এবং প্রতিবেশী অঞ্চলের সাথে সাংস্কৃতিক বিনিময়ে নিযুক্ত ছিল।

 6. পরিবেশগত অন্তর্দৃষ্টি: 

সাইটটিতে পাওয়া উদ্ভিদের অবশেষ এবং প্রাণীর হাড়ের বিশ্লেষণের মাধ্যমে গবেষকরা স্থানীয় পরিবেশ এবং প্রাগৈতিহাসিক বাসিন্দাদের জীবনযাপনের ধরণ সম্পর্কে অন্তর্দৃষ্টি অর্জন করেছেন। এই তথ্য সেই সময়ে উপলব্ধ খাদ্য, কৃষি অনুশীলন এবং প্রাকৃতিক সম্পদ পুনর্গঠনে সাহায্য করে।

 7. কালানুক্রমিক ক্রম: 

পান্ডু রাজার ঢিবির খনন এই অঞ্চলে মানুষের পেশার একটি কালানুক্রমিক ক্রম স্থাপনে সাহায্য করেছে, যা প্রাগৈতিহাসিক যুগে বাংলায় সংঘটিত সাংস্কৃতিক ও ঐতিহাসিক উন্নয়ন সম্পর্কে আরও ভালভাবে উপলব্ধি করতে সহায়তা করেছে।

 সামগ্রিকভাবে, পান্ডু রাজার ঢিবিতে পাওয়া প্রাগৈতিহাসিক প্রমাণগুলি বাংলার ইতিহাস সম্পর্কে আমাদের জ্ঞানে উল্লেখযোগ্য অবদান রাখে, যা এই অঞ্চলের প্রাগৈতিহাসিক সম্প্রদায়ের জীবনধারা, প্রযুক্তি, বাণিজ্য সংযোগ এবং সাংস্কৃতিক অনুশীলনের উপর আলোকপাত করে।

Related Short Question:

1. বাংলার ইতিহাসে পান্ডু রাজার ঢিবির তাৎপর্য কী?

 ক) এটি একটি প্রাগৈতিহাসিক প্রত্নতাত্ত্বিক স্থান

 খ) এটি একটি বিখ্যাত মন্দির কমপ্লেক্স

 গ) এটি একটি মধ্যযুগীয় দুর্গ

 ঘ) এটি একটি ঔপনিবেশিক যুগের ট্রেডিং পোস্ট


 উত্তর: ক) এটি একটি প্রাগৈতিহাসিক প্রত্নতাত্ত্বিক স্থান


 2. পান্ডু রাজার ঢিবিতে নিওলিথিক বন্দোবস্ত কোন সময়কালের?

 ক) 19 শতক খ্রি.

 খ) খ্রিস্টপূর্ব ৬ষ্ঠ শতাব্দী

 গ) 1500 BCE

 ঘ) 10,000 BCE


 উত্তর: গ) 1500 BCE


 3. পান্ডু রাজার ঢিবিতে কী ধরনের নিদর্শন আবিষ্কৃত হয়েছে?

 ক) মেগালিথিক কাঠামো

 খ) মৃৎপাত্রের টুকরো

 গ) মধ্যযুগীয় পাণ্ডুলিপি

 ঘ) প্রাচীন মুদ্রা


 উত্তর: খ) মৃৎপাত্রের টুকরো


 4. পান্ডু রাজার ঢিবিতে পাওয়া মেগালিথিক সমাধিগুলি কী নির্দেশ করে?

 ক) ধর্মীয় মন্দিরের অস্তিত্ব

 খ) একটি নগর-রাষ্ট্রের উন্নয়ন

 গ) একটি অন্ত্যেষ্টি সংস্কৃতি

 d) প্রারম্ভিক লেখার পদ্ধতির প্রমাণ


 উত্তর: গ) একটি অন্ত্যেষ্টি সংস্কৃতি


 5. পান্ডু রাজার ঢিবিতে প্রাপ্ত হাতিয়ার ও সরঞ্জামের ভিত্তিতে বাংলার প্রাগৈতিহাসিক বাসিন্দাদের সম্পর্কে কী অনুমান করা যায়?

 ক) তারা প্রাথমিকভাবে শিকারী-সংগ্রাহক ছিল

 খ) তাদের উন্নত কৃষি পদ্ধতি ছিল

 গ) তারা দূর-দূরান্তের বাণিজ্যে নিযুক্ত ছিল

 ঘ) তারা দক্ষ ধাতু শ্রমিক ছিল


 উত্তর: ক) তারা ছিল প্রাথমিকভাবে শিকারী-সংগ্রাহক


 6. পান্ডু রাজার ঢিবিতে পাওয়া উদ্ভিদের অবশেষ এবং প্রাণীর হাড়ের বিশ্লেষণ থেকে কী অন্তর্দৃষ্টি পাওয়া যায়?

 ক) প্রাচীন অধিবাসীদের ধর্মীয় রীতিনীতি

 খ) প্রাগৈতিহাসিক সময়ে পরিবেশগত অবস্থা

 গ) প্রাচীন সমাজের রাজনৈতিক সংগঠন

 ঘ) প্রতিবেশী অঞ্চলের সাথে সাংস্কৃতিক বিনিময়


 উত্তর: খ) প্রাগৈতিহাসিক সময়ে পরিবেশগত অবস্থা


 7. পান্ডু রাজার ঢিবির প্রাগৈতিহাসিক প্রমাণ বাণিজ্য সংযোগ সম্পর্কে কী নির্দেশ করে?

 ক) বাণিজ্য সংযোগের কোনো প্রমাণ নেই

 খ) নিকটবর্তী অঞ্চলের সাথে সীমিত বাণিজ্য

 গ) দূরবর্তী সংস্কৃতির সাথে বিস্তৃত বাণিজ্য নেটওয়ার্ক

 d) শুধুমাত্র বাংলা অঞ্চলের মধ্যে ব্যবসা


 উত্তর: খ) নিকটবর্তী অঞ্চলের সাথে সীমিত বাণিজ্য


 8. পান্ডু রাজার ঢিবিতে মানুষের পেশার কালানুক্রমিক ক্রম কী প্রতিষ্ঠা করতে সাহায্য করে?

 ক) প্রাচীন বাংলার সাংস্কৃতিক চর্চা

 খ) প্রাগৈতিহাসিক অধিবাসীদের ধর্মীয় বিশ্বাস

 গ) বিভিন্ন সময়কালে প্রযুক্তিগত অগ্রগতি

 d) প্রাচীন সমাজের মাইগ্রেশন প্যাটার্ন


 উত্তর: গ) বিভিন্ন সময়কালে প্রযুক্তিগত অগ্রগতি


 9. পান্ডু রাজার ঢিবি বাংলার ইতিহাসের কোন দিকটি আমাদের বোঝার ক্ষেত্রে অবদান রাখে?

 ক) বাংলায় মধ্যযুগীয় রাজবংশ

 খ) ঔপনিবেশিক যুগের বাণিজ্য পথ

 গ) বাংলায় প্রাগৈতিহাসিক সভ্যতা

 ঘ) প্রাচীন বাংলার শিল্প ও স্থাপত্য


 উত্তর: গ) বাংলায় প্রাগৈতিহাসিক সভ্যতা


 10. পান্ডু রাজার ঢিবিতে প্রত্নতাত্ত্বিক খননের প্রাথমিক ফোকাস কী?

 ক) প্রাচীন ধর্মগ্রন্থ উন্মোচন

 খ) সমাহিত ধন সন্ধান করা

 গ) ভূতাত্ত্বিক গঠন অধ্যয়ন

 ঘ) বাংলার প্রাগৈতিহাসিক অতীতকে প্রকাশ করা


 উত্তর: ঘ) বাংলার প্রাগৈতিহাসিক অতীতকে প্রকাশ করা

Next Post Previous Post