All MCQ

ক্যান্টন বাণিজ্যের পতনের কারণ ব্যাখ্যা করা।

 ক্যান্টন বাণিজ্যের পতন: কারণ এবং প্রভাব

ক্যান্টন বাণিজ্যের পতন, যা ক্যান্টন সিস্টেম বা ক্যান্টন বাণিজ্য মেলা নামেও পরিচিত, বিভিন্ন কারণে দায়ী করা যেতে পারে। এখানে এর পতন ব্যাখ্যা করার মূল বিষয়গুলি রয়েছে:

 1. আফিম যুদ্ধ: 

চীন ও ব্রিটেনের মধ্যে আফিম যুদ্ধ (1839-1842 এবং 1856-1860) ক্যান্টন বাণিজ্যকে মারাত্মকভাবে প্রভাবিত করেছিল। এই যুদ্ধগুলি ছিল ব্রিটিশ আফিম বাণিজ্য নিয়ে উত্তেজনার ফল, যা চীনা সমাজের উপর ক্ষতিকর প্রভাবের কারণে চীন দমন করতে চেয়েছিল। যুদ্ধগুলি বাণিজ্যকে ব্যাহত করেছিল, সম্পর্কের ক্ষতি করেছিল এবং চীনের উপর অসম চুক্তি আরোপ করেছিল।

 2. অসম চুক্তি: 

অসম চুক্তির স্বাক্ষর, যেমন নানজিং চুক্তি (1842) এবং পরবর্তী চুক্তিগুলি, বিদেশী শক্তিগুলিকে চীনে বাণিজ্য অধিকার এবং বহির্মুখীতা বৃদ্ধি করেছে। এর ফলে ক্যান্টন (গুয়াংজু) এর বাইরেও বাণিজ্য বন্দর সম্প্রসারিত হয়, যা একমাত্র বাণিজ্য কেন্দ্র হিসেবে এর গুরুত্ব হ্রাস করে এবং এর পতনে অবদান রাখে।

 3. অতিরিক্ত বন্দর খোলা: 

চীনা সরকার, বিদেশী শক্তির চাপে, বৈদেশিক বাণিজ্যের জন্য অতিরিক্ত চুক্তি বন্দর খুলতে বাধ্য হয়েছিল। এটি বিদেশী ব্যবসায়ীদের নতুন বাজারে প্রবেশের অনুমতি দেয় এবং একচেটিয়া বাণিজ্য কেন্দ্র হিসাবে ক্যান্টনের উপর তাদের নির্ভরতা হ্রাস করে।

 4. ট্রেডিং প্যাটার্নে পরিবর্তন: 

ক্যান্টন বাণিজ্যের পতন বিশ্ব বাণিজ্যের ধরণ পরিবর্তনের সাথে মিলে যায়। ইউরোপ এবং আমেরিকায় শিল্প বিপ্লবের অগ্রগতির সাথে সাথে পশ্চিমা দেশগুলি চীনের সাথে কাঁচামাল এবং পণ্যের জন্য বাণিজ্য করতে চেয়েছিল। এটি সাংহাই এবং হংকং-এর মতো অন্যান্য বন্দরের সাথে বাণিজ্য রুটের বৈচিত্র্যের দিকে পরিচালিত করে, আরও বিশিষ্ট হয়ে ওঠে।

 5. মুক্ত বাণিজ্য আন্দোলনের উত্থান: 

ক্যান্টন সিস্টেমের পতনও মুক্ত বাণিজ্য মতাদর্শের ক্রমবর্ধমান জনপ্রিয়তার দ্বারা প্রভাবিত হয়েছিল। উকিলরা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যের উপর থেকে বিধিনিষেধ অপসারণ, খোলা বাজারের পক্ষে এবং কম সরকারি হস্তক্ষেপের পক্ষে যুক্তি দিয়েছেন। এই আন্দোলনগুলি ক্যান্টন বাণিজ্য ব্যবস্থার একচেটিয়া প্রকৃতির ক্ষয় ঘটায়।

 6. চীনা জাতীয়তাবাদ এবং ঘরোয়া চাপ: 

ক্যান্টন সিস্টেমকে পশ্চিমা শক্তির কাছে চীনের আনুগত্যের একটি মূর্ত প্রতীক হিসাবে দেখা হয়েছিল। চীনা জাতীয়তাবাদী এবং সংস্কারক, যেমন লিন জেক্সু, চীনের অর্থনৈতিক বিষয় এবং সার্বভৌমত্বের উপর নিয়ন্ত্রণ পুনরুদ্ধারের লক্ষ্যে এই ব্যবস্থার বিলুপ্তির আহ্বান জানিয়েছিলেন।

 7. চোরাচালান এবং অবৈধ বাণিজ্য: 

ক্যান্টন সিস্টেমের কঠোর প্রবিধান এবং বিদেশী ব্যবসায়ীদের কাছে সীমিত প্রবেশাধিকার চোরাচালান এবং অবৈধ বাণিজ্য অনুশীলন বৃদ্ধির দিকে পরিচালিত করে। এই অবৈধ কার্যকলাপগুলি সিস্টেমের কার্যকারিতা হ্রাস করেছে এবং এর পতনে আরও অবদান রেখেছে।

 ক্যান্টন বাণিজ্যের পতন বিদেশী শক্তির সাথে চীনের সম্পর্ক এবং বিশ্ব অর্থনীতিতে এর একীকরণের ক্ষেত্রে একটি উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন চিহ্নিত করেছে। এটি 19 শতকে আন্তর্জাতিক বাণিজ্য গতিশীলতা, রাজনৈতিক চাপ এবং অর্থনৈতিক মতাদর্শ পরিবর্তন করার ক্ষেত্রে চীনের মুখোমুখি চ্যালেঞ্জগুলি প্রতিফলিত করে।

Related Short Question:

প্রশ্নঃ ক্যান্টন বাণিজ্য কি ছিল?

 উত্তর: ক্যান্টন বাণিজ্য বলতে 18 এবং 19 শতকে ক্যান্টন (বর্তমানে গুয়াংজু) বন্দরে চীন এবং বিদেশী বণিকদের মধ্যে পরিচালিত বাণিজ্যকে বোঝায়।

 প্রশ্নঃ ক্যান্টন বাণিজ্যে কোন দেশের আধিপত্য ছিল?

 উত্তর: ব্রিটিশ বণিকরা, বিশেষ করে যারা ব্রিটিশ ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির সাথে যুক্ত, তারা ক্যান্টন বাণিজ্যে প্রভাবশালী ভূমিকা পালন করেছিল।

 প্রশ্নঃ ক্যান্টন বাণিজ্যের সময় প্রধান পণ্য কি কি লেনদেন হত?

 উত্তর: ক্যান্টন বাণিজ্যের সময় প্রধান পণ্যগুলির মধ্যে চা, সিল্ক, চীনামাটির বাসন, মশলা এবং বিভিন্ন বিলাস দ্রব্য অন্তর্ভুক্ত ছিল।

 প্রশ্নঃ ক্যান্টন সিস্টেম কি ছিল?

 উত্তর: ক্যান্টন সিস্টেম ছিল ক্যান্টনে বৈদেশিক বাণিজ্যের উপর চীনা সরকার কর্তৃক আরোপিত নিয়মের একটি সেট। এটি বিদেশী ব্যবসায়ীদের একটি নির্দিষ্ট এলাকায় সীমাবদ্ধ করে এবং তাদের কার্যক্রম সীমিত করে।

 প্রশ্ন: ক্যান্টন বাণিজ্যের পতনের কারণ কী?

 উত্তর: আফিম যুদ্ধ, অসম চুক্তি স্বাক্ষর, অতিরিক্ত চুক্তি বন্দর খোলা, বাণিজ্যের ধরণ পরিবর্তন, মুক্ত বাণিজ্য আন্দোলনের উত্থান, চীনা জাতীয়তাবাদ এবং চোরাচালান কার্যকলাপের মতো কারণগুলির জন্য ক্যান্টন বাণিজ্যের পতনকে দায়ী করা যেতে পারে।

 প্রশ্ন: ক্যান্টন বাণিজ্যের পতনের পরিণতি কী ছিল?

 উত্তর: ক্যান্টন বাণিজ্যের পতন ক্যান্টন সিস্টেমের ক্ষয়, চীনে নতুন বাণিজ্য বন্দর স্থাপন এবং বিদেশী শক্তির সাথে চীনের সম্পর্কের পরিবর্তনের দিকে পরিচালিত করে। এটি বৈশ্বিক অর্থনীতিতে চীনের বাণিজ্য গতিশীলতা এবং একীকরণের একটি উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন চিহ্নিত করেছে।

Next Post Previous Post