নানকিং চুক্তি-কে যুগসন্ধিক্ষণের চুক্তি বলা বলা হয় কেন ?

The Treaty of Nanking: A Landmark in Chinese History

 নানকিং চুক্তি: চীনের ইতিহাসে একটি ল্যান্ডমার্ক

"নানকিং চুক্তি", যা নানকিং চুক্তি বা নানজিং চুক্তি নামেও পরিচিত, বেশ কয়েকটি উল্লেখযোগ্য কারণে একটি যুগান্তকারী চুক্তি হিসাবে বিবেচিত হয়:

 1. প্রথম আফিম যুদ্ধের সমাপ্তি: 

নানকিং চুক্তি চীন ও ব্রিটেনের মধ্যে প্রথম আফিম যুদ্ধের (1839-1842) সমাপ্তি চিহ্নিত করে। এটি দ্বন্দ্বের অবসান ঘটায় এবং দুই দেশের মধ্যে ভবিষ্যত সম্পর্কের ভিত্তি স্থাপন করে।

 2. অসম চুক্তি: 

নানকিং চুক্তিটি ছিল একটি অসম চুক্তি যা ব্রিটেন চীনের উপর চাপিয়েছিল। এটি ক্ষমতার ভারসাম্যের পরিবর্তনের প্রতিনিধিত্ব করে, কারণ চীন অনেক ছাড় স্বীকার করতে এবং ব্রিটেনকে যথেষ্ট ক্ষতিপূরণ দিতে বাধ্য হয়েছিল।

 3. চুক্তি বন্দর খোলা: 

চুক্তিটি আন্তর্জাতিক বাণিজ্যের জন্য সাংহাই, ক্যান্টন, নিংবো, জিয়ামেন এবং ফুঝো সহ বেশ কয়েকটি চীনা বন্দর খুলে দিয়েছে। এটি চীনে বিদেশী উপস্থিতি এবং অর্থনৈতিক প্রভাবকে সহজতর করেছে, যা এই এলাকায় বিদেশী ছাড় প্রতিষ্ঠার দিকে পরিচালিত করেছে।

 4. বহিঃপ্রাদেশিকতা: 

নানকিং চুক্তি চীনে ব্রিটিশ নাগরিকদের বহির্ভূত অধিকার প্রদান করেছে। এর মানে হল যে ব্রিটিশ নাগরিকরা চীনা আইন থেকে অব্যাহতিপ্রাপ্ত এবং শুধুমাত্র তাদের নিজস্ব আইনি ব্যবস্থার অধীন ছিল। এই বিধানটি চীনের সার্বভৌমত্বকে ক্ষুন্ন করেছে এবং এর আইনি ও বিচার ব্যবস্থার জন্য সুদূরপ্রসারী প্রভাব ফেলেছে।

 5. হংকংয়ের অবসান: 

চুক্তির অংশ হিসাবে, চীন চিরস্থায়ীভাবে হংকংকে ব্রিটেনের হাতে তুলে দিয়েছে। এটি হংকংয়ের জন্য একটি বিশিষ্ট ব্রিটিশ উপনিবেশ এবং এই অঞ্চলে একটি গুরুত্বপূর্ণ আন্তর্জাতিক বাণিজ্য কেন্দ্রে পরিণত হওয়ার পথ প্রশস্ত করেছিল।

 6. অসম চুক্তির নজির: 

নানকিং চুক্তি অন্যান্য বিদেশী শক্তি দ্বারা চীনের উপর আরোপিত পরবর্তী অসম চুক্তিগুলির নজির স্থাপন করেছে। এটি চীনের দুর্বলতা প্রদর্শন করে এবং বিদেশী আগ্রাসনের সময়কালের সূচনা করে, যা শেষ পর্যন্ত চীনের পতন এবং তার সার্বভৌমত্বের ক্ষয় ঘটায়।

 7. চীনা ইতিহাসের উপর প্রভাব: 

নানকিং চুক্তি চীনের ইতিহাসে গভীর প্রভাব ফেলেছিল, যা চীনের অপমান এবং পশ্চিমা শক্তির দখলের প্রতীক হিসেবে কাজ করে। এটি সাম্রাজ্যবাদ বিরোধী অনুভূতির উত্থানের জন্য একটি অনুঘটক হয়ে ওঠে এবং চীনে সংস্কার ও আধুনিকীকরণের আন্দোলনে ইন্ধন জোগায়।

 সামগ্রিকভাবে, চীনের সার্বভৌমত্ব, বৈদেশিক সম্পর্ক এবং এর ইতিহাসের পরবর্তী গতিপথের উপর এর সুদূরপ্রসারী ফলাফলের কারণে নানকিং চুক্তিকে একটি যুগান্তকারী চুক্তি হিসাবে বিবেচনা করা হয়। এটি পশ্চিমের সাথে চীনের মিথস্ক্রিয়ায় একটি টার্নিং পয়েন্ট চিহ্নিত করেছে এবং দেশে আরও অসম চুক্তি এবং বিদেশী প্রভাবের মঞ্চ তৈরি করেছে।

Related Short Question:

প্রশ্নঃ নানকিং চুক্তি কি?

 উত্তর: নানকিং চুক্তি, যা নানকিং চুক্তি নামেও পরিচিত, 1842 সালে চীন এবং ব্রিটেনের মধ্যে স্বাক্ষরিত একটি চুক্তি।

 প্রশ্নঃ কেন নানকিং চুক্তি তাৎপর্যপূর্ণ?

 উত্তর: নানকিং চুক্তিটি তাৎপর্যপূর্ণ কারণ এটি প্রথম আফিম যুদ্ধের সমাপ্তি চিহ্নিত করেছিল এবং অসম শর্তাবলী প্রতিষ্ঠা করেছিল, চুক্তি বন্দরগুলি খুলেছিল, বহির্মুখী অধিকার প্রদান করেছিল এবং হংকংকে ব্রিটেনের হাতে তুলে দিয়েছিল।

 প্রশ্নঃ নানকিং চুক্তির অসম শর্তাবলী কি কি ছিল?

 উত্তর: নানকিং চুক্তি চীনের উপর অসম শর্ত আরোপ করেছিল, যার মধ্যে একটি বড় ক্ষতিপূরণ প্রদান, বৈদেশিক বাণিজ্যের জন্য বন্দর খোলা এবং ব্রিটিশ নাগরিকদের বহির্মুখী অধিকার প্রদান।

 প্রশ্নঃ নানকিং চুক্তির ফলে কোন বন্দরগুলো খোলা হয়েছিল?

 উত্তর: নানকিং চুক্তি আন্তর্জাতিক বাণিজ্যের জন্য সাংহাই, ক্যান্টন, নিংবো, জিয়ামেন এবং ফুঝো-এর মতো বন্দরগুলিকে উন্মুক্ত করেছে।

 প্রশ্ন: নানকিং চুক্তির অধীনে বহির্বিশ্বের অধিকারগুলি কী প্রদত্ত ছিল?

 উত্তর: নানকিং চুক্তি ব্রিটিশ নাগরিকদের বহির্মুখী অধিকার দিয়েছে, যার অর্থ তারা চীনা আইন থেকে অব্যাহতি পেয়েছে এবং তাদের নিজস্ব আইনি ব্যবস্থার অধীন ছিল।

 প্রশ্ন: চীন নানকিং চুক্তির অধীনে ব্রিটেনকে কোন ভূখণ্ড অর্পণ করেছিল?

 উত্তর: চীন নানকিং চুক্তির অংশ হিসেবে চিরস্থায়ীভাবে হংকংকে ব্রিটেনের হাতে তুলে দিয়েছে।

 প্রশ্ন: নানকিং চুক্তি কীভাবে চীনের ইতিহাসকে প্রভাবিত করেছিল?

 উত্তর: নানকিং চুক্তি বিদেশী আগ্রাসনের সময়কাল চিহ্নিত করেছে, সাম্রাজ্যবাদ বিরোধী মনোভাব জাগিয়েছে এবং চীনের উপর আরোপিত পরবর্তী অসম চুক্তির নজির স্থাপন করেছে।

 প্রশ্নঃ নানকিং চুক্তি চীনের জন্য কিসের প্রতীক ছিল?

 উত্তর: নানকিং চুক্তি চীনের অপমান, সার্বভৌমত্বের ক্ষয় এবং দেশে বিদেশী প্রভাব বৃদ্ধির সূচনার প্রতীক।

Next Post Previous Post